ঢাকা রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১

ইসরায়েল-হামাস উভয়ই যুদ্ধাপরাধ করেছে: জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান

নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২৩ ১৮:৫৭; আপডেট: ১৪ জুলাই ২০২৪ ১৮:৫২

 

ইসরায়েলে ঢুকে হামাসের হামলা এবং এরপর গাজায় ইসরায়েলের নির্বিচার হামলায় সাধারণ মানুষের প্রাণহানি-দুইই যুদ্ধাপরাধ, বলেছেন ভলকার টুর্ক।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার ভলকার টুর্ক বলেছেন, ইসরায়েল ও হামাস উভয়ই যুদ্ধাপরাধ করেছে। মধ্যপ্রাচ্য সফরে আছেন টুর্ক। বুধবার গাজা সীমান্তের রাফাহ ক্রসিং পরিদর্শনের সময় তিনি একথা বলেন।

ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস গত ৭ অক্টোবরে ইসরায়েলে ঢুকে নজিরবিহীন যে হামলা চালিয়েছিল এবং লোকজনকে জিম্মি করেছিল তা জঘন্য, নৃশংস ছিল বলে তুর্ক মন্তব্য করেন। তার মতে, সেই হামলা যুদ্ধপরাধ ছিল। আর লোকজনকে জিম্মি করে রাখাটাও যুদ্ধাপরাধ।

হামাসের ওই হামলার দিন থেকেই গাজা অবরুদ্ধ করে রেখে নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। তারা গাজায় স্থল অভিযানও চালাচ্ছে। ভলকার টুর্ক বলেন, “ফিলিস্তিনের বেসামরিক লোকজনকে ঢালাওভাবে ইসরায়েলের সাজা দেওয়াটাও যুদ্ধাপরাধের সামিল, যেমনটা বেসামরিক মানুষকে বেআইনিভাবে জোর করে উচ্ছেদ করাটা অপরাধ।”

গাজায় ইসরায়েলের বোমা হামলায় বিশেষ করে নারী ও শিশুরা মারা যাচ্ছে এবং আহত হচ্ছে উল্লেখ করেন টুর্ক বলেন, বোমা হামলায় সাধারণ মানুষের জীবনের নিদারূণ ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে।

গাজায় ইসরায়েলি হামলার শুরু থেকে এ পর্যন্ত ১০ হাজার ৫০০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার পরিসংখ্যান জানিয়েছে গাজার হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ৪ হাজারেরও বেশি শিশু রয়েছে।

 




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top