ঢাকা শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১

বাংলাদেশেও বাড়ছে এইডস রোগীর সংখ্যা

Saydur Rahman | প্রকাশিত: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০২:৪১; আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৬:০৩

বিশ্বের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাংলাদেশেও বাড়ছে এইডস রোগীর সংখ্যা। বর্তমানে দেশে ১০ হাজার ৯৮৪ জন এইডস রোগী শনাক্ত হয়েছে। ১৯৮৯ সালে দেশে প্রথম এইডস রোগী শনাক্ত হওয়ার পর গত ৩৪ বছরের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা যায় এইডসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২০৮৬ জনের। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, বাংলাদেশে এইচআইভি ভাইরাস বহনকারী মানুষের সংখ্যা ১৫ হাজারের বেশি। পুরুষ যৌনকর্মীদের মধ্যে এইডস আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এছাড়া পুরুষ সমকামীদের মধ্যেও এ রোগ ছড়াচ্ছে। এ বছর যারা আক্রান্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ৯ দশমিক ৫ শতাংশ পুরুষ। বিশেষ করে বিদেশ থেকে ফেরত আসা প্রবাসীদের প্রায় ৬৬ শতাংশই এইডস রোগে আক্রান্ত বলে এক গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে।


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সংবাদ প্রতিদিনকে বলেন, বাংলাদেশ অনেক রোগ নির্মূল বা নিয়ন্ত্রণে সফল হলেও এইডস নিয়ন্ত্রণে থমকে আছে। এইডস নির্মূলে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসায় আরো বেশি জোর দিতে হবে। পাশাপাশি রোগটি যেন না ছড়ায় সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। তাদের (আক্রান্তদের) দূরে সরিয়ে রাখা নয়। বাংলাদেশ সরকার এইডসের জন্য বিনা মূল্যে চিকিৎসা ওষুধসহ সব ধরনের সেবা দিচ্ছে।
অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর বলেন, ‘মানুষ এখন এক জায়গায় অবস্থান করছে না। সারা বিশ্বের সঙ্গে অবাধ যাতায়াত করছে। ফলে সংক্রামক রোগও দ্রুতই এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় ছড়িয়ে যায়। মৃত্যু বেড়ে যাওয়ার দুটি কারণ হতে পারে। আগে হয়তো অজ্ঞাত রোগ হিসেবে মারা যেত। এখন এইডস নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি ভালো হওয়ায় রোগী শনাক্ত বেশি হচ্ছে, এইডস আক্রান্তের মৃত্যু এইডস হিসেবেই চিহ্নিত করা হচ্ছে। আরেকটা হতে পারে, বাংলাদেশে যারা এইডস আক্রান্ত তাদের বয়স হয়েছে, তাদের অনেকের ন্যাচারাল ডেথ হচ্ছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top