ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক হতে চান ৭৫ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক: | প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২১ ১২:১৩; আপডেট: ৫ আগস্ট ২০২১ ১২:৪৮

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগে শুধুমাত্র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতেই প্রার্থিতা ঘোষণা করেছেন ৭৫ জন। দীর্ঘ ২০ বছর পর অনুষ্ঠিত সম্মেলনে তারা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতে আগ্রহ দেখিয়েছেন।

শনিবার (১৯ জুন) সকালে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়।

পরে বিকেলে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এসময়  সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে আগ্রহীদের নাম জমা দিতে বলা হয়। পরে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য ৭৫ জন নাম জমা পড়ে। 

নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট এইচএম জিয়া উদ্দিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে ৪৩ জন সভাপতি পদে আর ৩২ জন সেক্রেটারি পদে ফরম জমা দিয়েছেন। সম্মেলন শেষে তাদের সেই আবেদন ফরম নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা ঢাকায় গিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রীয় নেতারা যাচাই-বাছাই শেষে দ্রুত সময়ের মধ্যেই ঢাকা থেকে কমিটি ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন। তবে একবারেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হবে না কি আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হবে, এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা সিদ্ধান্ত নেবেন।

২০০১ সালের জুলাই মাসে অ্যাডভোকেট এইচএম জিয়াউদ্দীনকে আহ্বায়ক ও কেবিএম শাহজাহান ও সালাউদ্দিন আহমদকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ২১ সদস্যের চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটি। তবে গত ২০ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে পারেনি আহ্বায়ক কমিটির নেতারা। এমনকি ওয়ার্ড এবং থানা পর্যায়েও সব কমিটি ঘোষণা করতে পারেননি তারা।

নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন, এবার কমিটিতে স্থান পেতে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী তথা তার ছেলে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এবং সাবেক মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী কমপক্ষে ১০ থেকে ১২ জন আলোচনায় রয়েছেন।

আলোচনায় থাকা মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছাত্রলীগের সাবেক নেতা দেবাশীষ নাথ দেবু, বেসরকারি কারা পরিদর্শক ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আজিজুর রহমান আজিজ, কাউন্সিলর আবুল হাসনাত বেলাল। আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত কর্মাস কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সুজিত দাশ এবং আব্দুর রশিদ লোকমান আলোচনায় রয়েছেন।

এর বাইরে আলোচনায় রয়েছেন নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট এ এইচ এম জিয়া উদ্দিনের অনুসারী অনুজ অ্যাডভোকেট তসলিম উদ্দিন, আজাদ খান অভি ও শাহেদ আলী রানা, সালাউদ্দিন ও সাদেক হোসেন পাপ্পু।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top